শিরোনাম:
নবীনগরে শিল্পপতি রিপন মুন্সির স্বপ্নের ফার্মে ঘুরে দাঁড়ালো ৫০০ অসহায় পরিবার নবীনগরে বিএনপির অপপ্রচার ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্পৃতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত। নবীনগরে ব্যারিষ্টার জাকির আহাম্মদ কলেজে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেবে রাশিয়া বিয়ের পরদিন মেঘনায় ভাসছিল যুবকের মরদেহ প্রেমের টানে এবার জয়পুরহাটে শ্রীলঙ্কান যুবক ইডেনের বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রীরা কৃষিমন্ত্রীর বাসায় এবার গোপনে নয়, আয়োজন করে বিয়ে করবেন শাকিব ৩ স্ত্রী থাকার পরও কিশোরীকে বিয়ের প্রস্তাব, রাজি না হওয়ায় অপহরণ ইভ্যালির সার্ভার খুলছে শিগগিরই, অনলাইনে চালু হবে কেনাবেচা
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৩১ অপরাহ্ন

পরকীয়া প্রেমিকার ঘরের বারান্দা থেকে প্রেমিকের লাশ উদ্ধার

প্রতিনিধির / ২১৫ বার
আপডেট : বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
পরকীয়া প্রেমিকার ঘরের বারান্দা থেকে প্রেমিকের লাশ উদ্ধার
পরকীয়া প্রেমিকার ঘরের বারান্দা থেকে প্রেমিকের লাশ উদ্ধার

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় প্রেমিকার বাড়ি থেকে পরকীয়ায় আসক্ত বানচা কর্মকার (৫০) নামে এক প্রেমিকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত বানচা কর্মকার উপজেলার বিলকাজুলী গ্রামের নিখিল চন্দ্র কর্মকারের ছেলে। এ সময় হত্যাকাণ্ডে সন্দেহে কথিত প্রেমিকা সেলিনা বেগমকে (৪২) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরের পর ধুনট থানা থেকে নিহত বানচার মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে সোমবার মধ্যরাতে একই এলাকার পাকুড়িহাটা গ্রামে প্রেমিকার ঘরের বারান্দা থেকে বানচা কর্মকারের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বানচা কর্মকার দীর্ঘদিন ধরে ধুনট-শেরপুর সড়কের হুকুম আলী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় কামার শিল্পের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। একই এলাকার পাকুড়িহাটা গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা সেলিনা বেগমের সাথে তার পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সুযোগ পেলেই প্রেমিকার বাড়িতে যেতো বানচা কর্মকার। তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার বৃষ্টিভেজা রাতে বানচা কর্মকার তার প্রমিকার বাড়িতে যায়। একপর্যায়ে মধ্যরাতে সংবাদ পেয়ে প্রেমিকার ঘরের বারান্দা থেকে পুলিশ বানচা কর্মকারের লাশ উদ্ধার করে।

নিহত বানচা কর্মকারের ছেলে বাধন কুমার জানায়, তার বাবা অসুস্থ হয়েছে বলে সোমবার রাতে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সেলিনা বেগম তাকে সংবাদ দেয়। এ সময় ঘটনাস্থলে পৌছে বাবাকে মৃত অবস্থায় ওই বাড়িতে ঘরের বারান্দায় পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে সেলিনা বেগম জানান, বানচা কর্মকারের সাথে আমার দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্ক ছিল। সে আমার বাড়িতে অবাধে যাতায়াত করেছে। সোমবার রাতে আমার বাড়িতে আসার সময় বৃষ্টিভেজা আঙ্গিনায় পা পিছলে পড়ে গিয়ে মারা গেছে। তখন তার পরিবারের লোকজনকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

ধুনট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আসাদুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি ইউডি মামলা রেকর্ড করে মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সেলিনা বেগমকে আটক করা হয়েছে।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ

Recent Comments

No comments to show.